সাবিনা না গেয়ে নিলুফাকে গাওয়ার সুযোগ দিলেন

আসাদুল্লাহ বাদল

18 Jan, 2020 12:06pm


সাবিনা না গেয়ে নিলুফাকে গাওয়ার সুযোগ দিলেন

‘শুভদা’ ১৯৮৬ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত বাংলাদেশি নাট্যধর্মী চলচ্চিত্র। বাঙালি কথাসাহিত্যিক শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের ‘শুভদা’ উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত এই চলচ্চিত্রটি পরিচালনা করেছেন চলচ্চিত্রকার চাষী নজরুল ইসলাম। 

এতে ‘এতো সুখ সইবো কেমন করে’ শিরোনামে গানটি রচনা করেন মোহাম্মদ রফিকুজ্জামান।

‘এতো সুখ সইবো কেমন করে’ গানটি গাওয়ার জন্য শিল্পী হিসাবে নির্বাচন করা হয় সাবিনা ইয়াসমিনকে। তিনি গান গাওয়ার জন্য যথারীতি স্টুডিয়োতে হাজির হন। একবার তিনি গানটি গেয়েছেনও। গানটিতে সুর করেছিলেন খন্দকার নুরুল আলম।

হঠাৎ করেই সাবিনা ইয়াসমিন গানটি গাইতে অপরাগতা প্রকাশ করেন। তার অভিমত উচ্চমার্গীয় এই গানটি তিনি (সাবিনা ইয়াসমিন) না গেয়ে নিলুফার ইয়াসমিন গাইলে ভালো গাইবেন বলে মত প্রকাশ করেন। 



গানের রচয়িতা মোহাম্মদ রফিকুজ্জামান ও শুভদার পরিচালক চাষী নজরুল ইসলামও মত বদলান। একই মতে যুক্ত হন সুরকার  খন্দকার নুরুল আলম। তারা সাবিনা ইয়াসমিনের কথায় নিলুফার ইয়াসমিনকে গান গাওয়ার প্রস্তাব করেন। পরে গানটি নিলুফার ইয়াসমিনের কণ্ঠেই ধারণ করা হয়। গানটি খুবই সুনাম অর্জন করে।

গানটি অবিকল:

“এতো সুখ সইবো কেমন করে
বুঝি কান্নাই লেখা ছিল ভাগ্যে আমার
সুখেও কান্না পায় দুচোখ ভরে।।

দুখের স্রোতে ভাসা ফুল
কোনদিন পায় না তো কূল।

আমি বুঝিবা পথের ভুলে
এলাম নতুন কূলে।
এ পথ আবার দূরে যাবে কী সরে।।

স্বপ্নের মত মনে হয়
হারাবার তাই এতো ভয়।

তুবু যেটুকু পেলাম আমি
প্রানের চেয়েও দামি।
চোখের জলে সবই যাবে কী ঝরে।।”

তথ্য সূত্র : মোহাম্মদ রফিকুজ্জামান ও এটিএন নিউজ


বিভাগ : বায়োস্কোপ