টঙ্গীতে জাতীয় পার্টির কোন সভা সমাবেশ হবে না

মো. আনোয়ার হোসেন

21 Jan, 2020 10:48am


টঙ্গীতে জাতীয় পার্টির কোন সভা সমাবেশ হবে না

ছাত্রলীগের বিক্ষোভ, মহাসড়ক অবরোধ ও কুশপুতুলে আগুন দেওয়ার মধ্য দিয়ে দ্বিতীয় দিনের মতো উত্তাল রয়েছে শিল্পনগরী টঙ্গীর রাজপথ। গতকাল সোমবার টঙ্গী থানা ছাত্রলীগের কর্মসূচির পর মঙ্গলবারও বিক্ষোভ করেছে টঙ্গী সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এসময় টঙ্গীতে জাতীয় পার্টিকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করেন বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা। 

গাজীপুর-২ আসনের প্রয়াত সংসদ সদস্য শহিদ আহসান উল্লাহ মাস্টার হত্যা মামলার ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত ফেরাার আসামি নুরুল ইসলাম দিপুকে জাতীয় পার্টির যুগ্ম-মহাসচিব পদ দেওয়ার প্রতিবাদে টঙ্গী কলেজগেট এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা করে টঙ্গী সরকারি কলেজ ছাত্রলীগ। 

পরে নেতাকর্মীরা ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করে নুরুল ইসলাম দিপু ও জাপা চেয়ারম্যান জিএম কাদেরের কুশপুতুলে আগুন দেয়। বিক্ষোভ মিছিলটি ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের গুরুত্বপূর্ণ স্থান প্রদক্ষিণ শেষে কলেজগেট এলাকায় এক প্রতিবাদ সভায় মিলিত হয়। 

আধাঘন্টা অবরোধের কারণে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের দুইপাশে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়।

টঙ্গী সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি কাজী মঞ্জুরের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিমের সঞ্চালনায় প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য দেন গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী ইলিয়াস আহমেদ, কাউন্সিলর নাসির উদ্দিন মোল্লা। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক জাকির হোসেন খোকন, কাজী মোহাম্মদ সেলিম, এমএম নাসির উদ্দিন, থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি নাসির উদ্দিন, যুবলীগ নেতা আমান উদ্দিন সরকার, বিল্লাল হোসেন মোল্লা, পলাশ মাহমুদ, জাহিদুল কবির আনোয়ার, লিটন উদ্দিন সরকার।

সভায় টঙ্গী সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক রেজাউল করিম হুশিয়ারি দিয়ে বলেন, আজ থেকে টঙ্গীতে জাতীয় পার্টির সকল কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়া হলো। জাতীয় পার্টির কোন সভা সমাবেশ টঙ্গীর মাটিতে হতে দেব না।

তিনি আরও বলেন, শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের কুখ্যাত খুনি নুরুল ইসলাম দিপুকে জাতীয় পার্টির যুগ্ম-মহাসচিবের পদ থেকে বহিস্কার করা না হলে জাতীয় পার্টির কোন কেন্দ্রীয় নেতাকে টঙ্গী ও গাজীপুরে ঢুকতে দেওয়া হবে না।


বিভাগ : উপজীব্য


এই বিভাগের আরও