বাজেটে কৃষি ও গ্রামীণ খাতের সঙ্গে প্রতারণা করা হয়েছে

যোগফল প্রতিবেদক

16 Jun, 2020 01:16pm


বাজেটে কৃষি ও গ্রামীণ খাতের সঙ্গে প্রতারণা করা হয়েছে
ছবি প্রতীকী

প্রস্তাবিত বাজেটে কৃষি ও গ্রামীণ খাতের সঙ্গে প্রতারণা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিপ্লবী কৃষক সংহতির সভাপতি আনছার আলী দুলাল এবং সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক শাহাদাৎ হোসেন শান্ত ও আবু লাহাব নাইুদ্দীন।

মঙ্গলবার (১৬ জুন ২০২০) গণমাধ্যমে পাঠানো বিবৃতিতে এই অভিযোগ করেন তারা।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দেশের মোট শ্রমশক্তির ৪৩ শতাংশ যে খাতের ওপর নির্ভরশীল। এই করোনা মহামারিকালে কৃষি ও গ্রামীণ অর্থনীতি দেশের মানুষকে বাঁচিয়ে রেখেছে। অথচ সেই গুরুত্বপূর্ণ খাত সরকারের মনোযোগের বাইরে রয়েছে। চলতি বাজেটে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে মাত্র ২৯ হাজার ৯৮৩ কোটি টাকা। যা মোট বাজেটের মাত ৩ দশমিক ৬ শতাংশ। এই বাজেট অন্তত তিনগুণ করা জরুরি।

বিবৃতিতে বলা হয়, নানা ধরণের চাপে থেকেও কৃষকরা বাম্পার ফসল দিয়েছে। সরকার কৃষককে লাভজনক মূল্য ও নগদ প্রণোদনা দেওয়ার পরিবর্তে পরোক্ষভাবে তাদের শাস্তি দেওয়ার ব্যবস্থা করেছে। পোলট্রি, দুগ্ধ, মৎস্য, তাঁতসহ কৃষি ও উদ্যোগসমূহ যে পরিমাণ প্রণোদনা ও সহযোগিতা পাওয়ার কথা তা থেকেও বঞ্চিত হয়েছে তারা। এছাড়া চুরি, দুর্নীতি, দলীয়করণ ও অব্যবস্থার কারণে প্রকৃত চাষীরা ঠকতেই থাকে।

তাছাড়া কৃষি বাজারে প্রকৃত উৎপাদক চাষির শক্তিশালী অবস্থান না থাকায় কৃষক কিনতেও ঠকে, আবার বেচতেও ঠকে। এই পরিস্থিতিতে কৃষি ও গ্রামীণ খাতের পুনরুজ্জীবনের জন্য কৃষিখাতের বাজেটসহ সমগ্র বাজেট প্রস্তাবনা ঢেলে সাজানোর আহ্বান জানানো হয়েছে।


বিভাগ : খেতখামার