‘একদিন সবারই বিচার হবে’

যোগফল ডেস্ক

08 Aug, 2020 08:54am


‘একদিন সবারই বিচার হবে’
ছবি : সংগৃহীত

অনেকেই দলের ও প্রধানমন্ত্রীর পরিচয় কাজে লাগিয়ে দুর্নীতি এবং অত্যাচার করছেন বলে মনে করেন ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য মজিবুর রহমান চোধুরী নিক্সন৷ ফরিদপুরের সাংবাদিক প্রবীর শিকদারও মনে করেন, এখনও ‘গডফাদারদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি৷

ডয়চে ভেলের ইউটিউবভিত্তিক সাপ্তাহিক টক শো ‘খালেদ মুহিউদ্দীন জানতে চায়' এর এবারের পর্ব ছিল, ফরিদপুরে কী হচ্ছে?

ফরিদপুরের দুর্নীতি নিয়ে কথা বলতে ডয়চে ভেলে বাংলা বিভাগের প্রধান খালেদ মহিউদ্দীনের সঙ্গে অতিথি হিসেবে যোগ দিয়েছিলেন সংসদ সদস্য নিক্সন চোধুরী৷ নিক্সন বলেন, ‘‘ফরিদপুরে টেন্ডারবাজি পুরোটাই ফরিদপুর শহর থেকে হয়৷ আমাদের উপজেলা পর্যায়ে এ ধরনের দুর্নীতি হয় না৷''

এক প্রশ্নের জবাবে নিক্সন বলেন, ‘‘আমার আগে যারা এখানে রাজনীতি করেছেন, তারা দুর্নীতি করেছেন, দল না করে বাহিনী চালিয়েছেন৷'' তৃণমূলের মানুষ সবসময়ই ফরিদপুর জেলার কাছে জিম্মি বলেও মনে করেন তিনি৷

আলোচনায় উঠে আসে বরকত ও রুবেল দুই ভাইয়ের দুর্নীতির বিষয়৷ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আত্মীয় খন্দকার মোশাররফের ছত্রছায়ায় তারা দুর্নীতি করে বলেও অভিযোগ রয়েছে৷ নিক্সন বলেন, ‘‘দুর্নীতির প্রশ্রয় ও টেন্ডারবাজি নিয়ন্ত্রণ করা হয় জেলা থেকে৷ ফরিদপুর শহর থেকেও টেন্ডারবাজি হয়৷ খন্দকার মোশাররফ যখন মন্ত্রী ছিলেন তখন থেকে এরা দাপিয়ে বেড়াচ্ছে৷''

তবে রাষ্ট্রেরও এসব ক্ষেত্রে দায় আছে বলে মনে করেন নিক্সন চৌধুরী৷ কিন্তু দীর্ঘদিন এ নিয়ে লেখালেখি এবং প্রতিবাদের পর সরকার সে বিষয়ে ব্যবস্থা নিচ্ছে বলেও মন্তব্য তার৷

শুধু খন্দকার মোশাররফ নন, বরকত-রুবেলের মতো দুর্নীতিবাজদের ক্ষমতা পাওয়ার ক্ষেত্রে ফরিদপুর জেলা ও শহরের আওয়ামী লীগ নেতাদেরও দায় আছে বলে মনে করেন নিক্সন৷ তিনি অভিযোগ করেন, সরকার দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য হওয়ার ক্ষমতা কাজে লাগিয়ে কাজী জাফরুল্লাহ ফরিদপুরে অনেক দুর্নীতি করছেন৷ তবে সে দুর্নীতিরও একদিন বিচার হবে বলে মনে করেন নিক্সন৷

সাংবাদিক প্রবীর শিকদার বলেন, শেখ হাসিনার প্রতিনিধি হিসেবে খন্দকার মোশাররফ হোসেনকে জনগণ বরণ করে নিয়েছিল, কিন্তু তিনি সে মর্যাদা রাখতে পারেননি৷

খন্দকার মোশাররফ হোসেন ও তার ভাই খন্দকার বাবর ফরিদপুরে লুটেরা রাজনীতির জনক বলে মন্তব্য করেন প্রবীর শিকদার৷ তিনি বলেন, ‘‘উনারা ভয়াবহ অপকর্ম করেছেন৷ আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার আসামিকে তার কর্মীরা কুপিয়েছেন৷ এই অপকর্মের দায় দুই ভাইকেই নিতে হবে৷''

বিভিন্ন সময় রাষ্ট্র বা পুলিশ কারো কাছ থেকে খন্দকার মোশাররফ ও তার ভাইয়ের অন্যায়-অত্যাচারের প্রতিকার চেয়েও পাননি বলে দাবি করেন তিনি৷ সূত্র: ডয়চে ভেলে।


বিভাগ : মুক্তমত


এই বিভাগের আরও