জাতিসংঘকে টিকা সাধলেন ‘পুতিন’

যোগফল ডেস্ক

23 Sep, 2020 05:50pm


জাতিসংঘকে টিকা সাধলেন ‘পুতিন’
ছবি : সংগৃহীত

পুতিন তার দেশে অনুমোদিত করোনার টিকাকে নির্ভরযোগ্য, নিরাপদ ও কার্যকর হিসেবে বর্ণনা করেছেন।

নিউইয়র্ক পোস্ট এক প্রতিবেদনে জানায়, স্পুটনিক-৫ নিয়ে অন্যদের মধ্যে সন্দেহ থাকলেও পুতিন এই টিকা অন্য দেশগুলোকে দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছেন। জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ভার্চুয়াল অধিবেশনে পুতিন বলেছেন, ‘আমরা অভিজ্ঞতা ভাগাভাগি করে নিতে প্রস্তুত এবং সব দেশকে সহযোগিতা অব্যাহত রাখতে চাই। এর মধ্যে রাশিয়ার টিকাও রয়েছে।’

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট আরও বলেছেন, ‘রাশিয়া জাতিসংঘকে প্রয়োজনীয় সব সহায়তা প্রদানের জন্য প্রস্তুত। বিশেষ করে জাতিসংঘ ও তার অফিসের কর্মীদের টিকা দেওয়ার জন্য আমাদের টিকা বিনা মূল্যে সরবরাহ করার প্রস্তাব দিচ্ছি।’

গত আগস্ট মাসে রাশিয়া তাদের প্রথম করোনার টিকার অনুমতি দেয়। অল্প কিছু মানুষের মধ্যে টিকাটি পরীক্ষা করায় এ নিয়ে আন্তর্জাতিক মহলে উদ্বেগ রয়েছে। টিকা অনুমোদনের সময় পুতিন বলেছিলেন, টিকার কার্যকারিতা ও স্থায়ী প্রতিরোধ সুরক্ষার বিষয়টি প্রমাণিত হয়েছে। তার এক সন্তানও টিকাটি নিয়েছেন।

দ্রুত টিকা অনুমোদন দেওয়া নিয়ে বিশ্বজুড়ে উদ্বেগের কারণ হচ্ছে তৃতীয় ধাপে বা চূড়ান্ত ধাপে কয়েক মাস ধরে হাজারও মানুষের ওপর এটি পরীক্ষা না করা।

এ মাসের শুরুতে আন্তর্জাতিক গবেষকেদের একটি দল স্পুটনিক-৫ টিকার গবেষকদের কাছে একটি খোলা চিঠিতে টিকা গবেষণার তথ্য স্পষ্ট করতে বলেছেন। রাশিয়ার গবেষকেরাও তথ্যের সীমাবদ্ধতার কথা স্বীকার করেছেন।

ল্যানসেট সাময়িকীতে প্রকাশিত নিবন্ধে দাবি করা হয়, টিকার দ্বিতীয় ধাপের পরীক্ষায় ৪০ জন স্বেচ্ছাসেবকের ওপর প্রয়োগে অ্যান্টিবডি তৈরি হতে দেখা গেছে। তাদের ৪২ দিন পর্যবেক্ষণ করা হয়। তবে নমুনা অল্পসংখ্যক মানুষের ওপর প্রয়োগ করা হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ অ্যান্থনি ফাউসি রাশিয়ার টিকা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করে বলেন, টিকার কার্যকারিতা ও নিরাপত্তা নিয়ে মারাত্মক সন্দেহ রয়েছে।


বিভাগ : ভিনদেশ


এই বিভাগের আরও