শ্রীপুরে সংখ্যালঘু এক নারীকে শ্লীলতাহানি ও পিতামাতাকে নির্যাতন করেছে মাদকাসক্ত জুম্মন

যোগফল প্রতিবেদক

20 Nov, 2020 12:04pm


শ্রীপুরে সংখ্যালঘু এক নারীকে শ্লীলতাহানি ও পিতামাতাকে নির্যাতন করেছে মাদকাসক্ত জুম্মন
ছবি : সংগৃহীত

নাম তার জুম্মন। এলাকার ও তার পরিবারের সদস্যদের দাবি তিনি একজন মাদকাসক্ত। নিয়মিত গাঁজা সেবন করেন তিনি। 

তিনি গাজীপুর জেলার শ্রীপুর পৌর এলাকার চন্নাপাড়া গ্রামের [৭ নম্বর ওয়ার্ড] বাবুল মিয়ার সন্তান জুম্মন (২৫)।

শনিবার [১৪ নভেম্বর ২০২০] বিকালে ভুক্তভোগী ওই নারী শিশু সন্তানকে কোলে নিয়ে বাড়ির সামনের গলিতে বের হলে জুম্মন তার স্পর্শকাতর স্থানে চাপ দিয়ে জাপটে ধরে। পরে তার ডাক চিৎকারে ঘটনাস্থল থেকে জুম্মন দৌড়ে পালিয়ে যায়। এসময় কয়েকজন জুম্মন দৌড়ে যেতে দেখে।

কয়েকজন প্রতক্ষদর্শী জানিয়েছেন, ওই নারীর স্পর্শকাতর অঙ্গে চাপ দিয়ে জাপ্টে ধরে বখাটে জুম্মন। তার নামে এলাকায় আরও অনেক অভিযোগ রয়েছে।

জুম্মনের মা পারুল বেগম (৫০) জানিয়েছেন, আমার ছেলের বিচারের জন্য আমি এলাকার গণ্যমান্যদের শরণাপন্ন হয়েছিলাম একাধিকার। কোনও বিচার পাইনি। 

গত রমজান মাসে আমার ইফতারের খাবারের সাথে বিষ মিশিয়ে দেয় আমারই সন্তান জুম্মন। ওইদিনই আমার গলায় চেপে ধরেছিল সে, আমার নিশ্বাস বন্ধ হয়ে আসছিল সেদিন! আর একটু হলে মরেই যেতাম। আমি এর বিচার চেয়েও পাইনি। ওই সময় বিচার করলে সে আজ এতো বড় অন্যায় করতে পারতো না। তার বিচার করার মতো কেউ নেই? একদিন ৯৯৯ নম্বরে ফোন করেছিলাম, তার ব্যাপারে বলেছিলাম, কিন্তু পুলিশ আসেনি।

জুম্মন মাদকাসক্ত এই দাবি করলেও পরিবারের কেউ তাকে মাদকাসক্তি নির্মূলে চেষ্টা চালায়নি। সরাসরি থানায়ও অভিযোগ দেয়নি। অবশ্য পরিবারের দাবি অভিযোগ দায়ের হলে তাদের বিপদ আরও বাড়তে পারে।

জুম্মনের পিতা বাবুল মিয়া (৫৫) জানিয়েছেন, আমি তার জন্মদাতা। আমার এই কু-সন্তান আমার দাড়িতে একদিন আগুন ধরিয়ে দেয়৷ আমাদের অনেক অত্যাচার করে সে। আমি কারও কাছে বিচার চেয়ে পাইনি। তার বিচার হওয়া উচিত।

শ্লীলতাহানির শিকার ওই নারী জানিয়েছেন, থানায় অথবা আদালতে এ ব্যাপারে ঝামেলায় জড়াতে চাই না, আমার মানসন্মান যাওয়ার ভয়ে। তবে এমন যেন আর কোনও নারীর সাথে না করতে পারে সেজন্য তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হউক।

এ ব্যাপারে জুম্মন জানিয়েছেন, এসব ঘটনা মীমাংসা হয়ে গেছে। আর বাড়াবাড়ি না করাই ভালো।

বৃহস্পতিবার [১৯ নভেম্বর ২০২০] বিকালে নাম গোপনের শর্তে এলাকার স্থানীয় কয়েকজন জানিয়েছেন, জুম্মন একটা মাদকাসক্ত। কিছুদিন পরপরই বিভিন্ন অঘটন ঘটায়। তাকে এখনই আইনের আওতায় আনা উচিত।


বিভাগ : তালাশ


এই বিভাগের আরও