তাজউদ্দীনের পরিমিতিবোধ

আসাদুল্লাহ বাদল

04 Feb, 2020 03:43am


তাজউদ্দীনের পরিমিতিবোধ
তাজউদ্দীন আহমদ

রাজনীতিবিদ তাজউদ্দীন আহমদের বড় গুণ ছিল তাঁর পরিমিতিবোধ। একথা স্বীকার করতেন তাঁকে যারা অপছন্দ করতেন, তারাও। এর প্রমাণ অল্প কথায় সুন্দরভাবে, সুন্দর হস্তাক্ষরে একটি পত্রিকার জন্য শুভেচ্ছাবাণী লিখেছেন। 

১৪ জুলাই ১৯৭২ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অর্থ, পরিকল্পনা ও রাজস্ব মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমদ তাঁর মন্ত্রণালয়ের প্যাডে হাতে লিখে স্বাক্ষর করছেন এই শুভেচ্ছা বার্তায়। 

তিনি লিখছেন, “বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি ‘জ্ঞানের মশাল’ নামে একটি মাসিক সাহিত্য পত্রিকা প্রকাশ করছে। আমি এই প্রচেষ্টাকে অভিনন্দন জানাচ্ছি। সাহিত্য জীবনের প্রতিচ্ছবি। ‘জ্ঞানের মশালের’ পাঠক ও শুভাকাংখীদের অধিকাংশই শিক্ষাব্রতীরুপে বাংলার পল্লী সমাজে বাস করেন। আমি আশা করি ‘জ্ঞানের মশালের’ মাধ্যমে নিরক্ষরতা, দারিদ্র্য ও কুসংস্কারে নিমজ্জিত বাংলার গ্রামীণ সমাজের প্রকৃত চিত্র পরিস্ফুটিত হবে। আমি ‘জ্ঞানের মশালের, অনির্বাণ আলোকছটা কামনা করছি।’’

লেখাটি সংকলন করেছেন সাংবাদিক শুভ কিবরিয়া। তিনি সাপ্তাহিকের নির্বাহি সম্পাদক।


বিভাগ : শিকড়