কৃষি গবেষণায় কৃষক সমাবেশ

যোগফল প্রতিবেদক

06 Feb, 2020 12:45pm


কৃষি গবেষণায় কৃষক সমাবেশ

বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বারি) এর কীটতত্ত্ব বিভাগ ও সবজি বিভাগের উদ্যোগে বৃহস্পতিবার চলমান গবেষণা কর্মসূচি ও সাম্প্রতিক উদ্ভাবিত প্রযুক্তিসমূহের উপর একটি মাঠ দিবস ও কৃষক সমাবেশ গবেষণা মাঠে অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব কমলারঞ্জন দাশ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে মাঠ দিবস ও কৃষক সমাবেশের উদ্বোধন করেন। বারি’র মহাপরিচালক ডক্টর মো. আব্দুল ওহাব এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে গেস্ট অব অনার হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ওয়ার্ল্ড ভেজিটেবল সেন্টার তাইওয়ানের গ্লোবাল প্ল্যান্ট ব্রিডিং লিড সায়েন্টিস্ট ডক্টর পিটার হ্যানসন ও বারি’র সাবেক পরিচালক ড. সৈয়দ নূরুল আলম। 

এছাড়াও অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পরিচালক (উদ্যানতত্ত্ব গবেষণা কেন্দ্র) ডক্টর আবেদা খাতুন, পরিচালক (সেবা ও সরবরাহ) মো. হাবিবুর রহমান শেখ, গাজীপুরের কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. মাহবুব আলম। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন কীটতত্ত্ব বিভাগের মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ও প্রধান ডক্টর দেবাশীষ সরকার।  

বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা, বিভিন্ন বীজ ও কীটনাশক কোম্পানির প্রতিনিধি এবং কৃষকসহ প্রায় ১৫০ জন মাঠ দিবসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছেন। 

কমলারঞ্জন দাশ বলেন, বর্তমান সরকারের চাওয়া হচ্ছে পুষ্টি সমৃদ্ধ নিরাপদ খাবার। এটি আমাদের নিশ্চিত করতে হবে। কৃষিতে আমরা এখন বাণিজ্যিকরণের দিকে এগিয়ে যাচ্ছি। কিন্তু ফসলের পোকা-মাকড় দমনে কৃষকেরা ঠিক মাত্রায় কীটনাশক ব্যবহার না করার কারণে এটা এখন জনস্বাস্থ্যের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাই দেশের জনস্বাস্থ্যের কথা চিন্তা করে ফসলের পোকা-মাকড় দমনে আমাদের জৈব বালাইনাশকের ব্যবহার বাড়াতে হবে। 

অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে বারি’র মহাপরিচালক আব্দুল ওহাব বলেন, ফসলের পোকা-মাকড় দমনে কীটনাশক প্রয়োগের একটা নির্দিষ্ট মাত্রা আছে। কিন্তু আমরা তা মানছি না। ফলে এটা জনস্বাস্থ্যের উপর ক্ষতিকর প্রভাব ফেলছে। আমি আশা করি আজকের এই মাঠ দিবস ও কৃষক সমাবেশ থেকে কৃষক ভাইয়েরা এ ব্যাপারে উপযুক্ত ধারণা লাভ করবেন।


বিভাগ : খেতখামার