গণমানুষকে আর্থিক সহায়তা দেওয়ার অন্যতম মাধ্যম বিমা

যোগফল প্রতিবেদক

15 Feb, 2021 09:02pm


গণমানুষকে আর্থিক সহায়তা দেওয়ার অন্যতম মাধ্যম বিমা
ছবি : সংগৃহীত

বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ) চেয়ারম্যান ডক্টর এম মোশাররফ হোসেন বলেছেন, গণমানুষকে আর্থিক সহায়তা দেওয়ার অন্যতম মাধ্যম বিমা। তিনি বলেন, আমাদের প্রয়োজনীয় খরচে পর সঞ্চিত আয়ের প্রথম অংশ যাওয়া উচিত বিমায়। আমরা এ লক্ষ্যেই কাজ করছি। যার কারণে এরইমধ্যে বিমার পেনিট্রেশন তথা বিমা গ্রাহক বাড়ছে।

আগামী জাতীয় বিমা দিবস উপলক্ষ্যে সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১) বিকালে কর্তৃপক্ষের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স এসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট শেখ কবির হোসেন ভার্চুয়ালি উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়াও কর্তৃপক্ষের দুই সদস্যসহ ইন্স্যুরেন্স ফোরামের প্রেসিডেন্ট বিএম ইউসুফ আলী উপস্থিত ছিলেন।

আইডিআরএ চেয়ারম্যান বলেন, বিমার অফিসে বসে যদি ছয় দফা লিখে বাংলাদেশের স্বাধীনতা আন্দোলনের সূচনা করতে পারেন বঙ্গবন্ধু। তা হলে আমরা কেন বিমার মাধ্যমে অর্থনৈতিক বিপ্লব আনতে পারব না। তিনি বলেন, আমরা এই দিবসটি কেন্দ্র করে উজ্জীবিত হবো এবং বিমার সুবিধা দেশের সর্বস্তরের জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছাতে বদ্ধ পরিকর থাকব।

বাংলাদেশ ব্যাংকের জনবলের সাথে তুলনা করে আইডিআরএ চেয়ারম্যান এম মোশাররফ হোসেন বলেন, আমাদের এখানে যথেষ্ট জনবলের ঘাটতি রয়েছে। এই সীমিত জনবলের কারণে আমরা বিমা কোম্পানিগুলোকে যথাযথভাবে তদারক করতে পারছি না। বিমাখাতের ইতিবাচক ইমেজ তৈরিতে এটি একটি বড় বাধা।

জাতীয় বিমা দিবসের আয়োজন সম্পর্কে আইডিআরএ চেয়ারম্যান বলেন, এবারের আয়োজনে কিছুটা পরিবর্তন আনা হচ্ছে। বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের পরিবর্তে উদ্ভাবনী ধারণা ভিত্তিক কার্যক্রম থাকবে। এবারও অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে তিনি সরাসরি উপস্থিত থাকবেন না, থাকবেন ভার্চুয়ালি।

এবারের বিমা দিবসে বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের নিজস্ব অর্থায়নে চালু হতে যাচ্ছে ‘বঙ্গবন্ধু শিক্ষা বিমা’।

১৬ লক্ষাধিক প্রতিবন্ধীর জন্য ‘স্বাস্থ্য বিমা’ পরিকল্প তৈরির কাজ চূড়ান্ত করা হয়েছে। চালু করা হয়েছে ‘বঙ্গবন্ধু স্পোর্টসম্যান ইন্স্যুরেন্স’। নির্ধারিত কয়েকটি বুধবারে ‘বঙ্গবন্ধু আশার আলো বিমা দাবি পরিশোধের প্রয়াস’ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বিধবা এবং পিতা-মাতা হারানো সন্তানদের হাতে বিমা দাবির টাকা তুলে দেওয়া হচ্ছে, জানান এম মোশাররফ হোসেন।