জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে নিউজিল্যান্ডে বিমার খরচ ২৪৮ মিলিয়ন ডলার

যোগফল রিপোর্ট

26 Feb, 2021 06:20pm


জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে নিউজিল্যান্ডে বিমার খরচ ২৪৮ মিলিয়ন ডলার
ছবি প্রতীকী

জলবায়ু পরিবর্তনের মারাত্মক প্রভাব পড়েছে দক্ষিণ-পশ্চিম প্রশান্ত মহাসাগরের দ্বীপরাষ্ট্র নিউজিল্যান্ডে। চরম আবহাওয়ার কারণে ব্যাপক লোকসানের মুখে পড়েছে দেশটির বিমাখাত। অস্বাভাবিক শিলাবৃষ্টি, বন্যা, খরা, ঘূর্ণিঝড়সহ বিভিন্ন ধরনের প্রাকৃতিক দুর্যোগে গেলো বছর নিউজিল্যান্ডে বিমার খরচ দাঁড়িয়েছে ২৪৮ মিলিয়ন ডলার।

এ কারণে ২০২০ সালকে আবহাওয়াজনিত বিমা দাবির জন্য খারাপ বছর বলে আখ্যায়িত করেছেন দেশটির বিমাখাত সংশ্লিষ্টরা। তারা বলছেন, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব নিউজিল্যান্ডবাসীর জন্য খুবই বাস্তবিক। আমাদের অবশ্যই পরিবর্তিত জলবায়ুর সাথে খাপ খাইয়ে নিতে হবে এবং সম্ভাব্য ঝুঁকি কমাতে পদক্ষেপ নেওয়াসহ আরও বেশি স্থিতিস্থাপক কমিউনিটি গড়ে তুলতে হবে।

ইন্স্যুরেন্স কাউন্সিল অব নিউজিল্যান্ড’র প্রধান নির্বাহি টিম গ্র্যাফটন জানিয়েছেন, খারাপ আবহাওয়ার কারণে ২০২০ সালে বিমা কোম্পানিগুলোর ২৪৮ মিলিয়ন ডলার খরচের রেকর্ড হয়েছে। তিনি বলেন, আবহাওয়াজনিত ক্ষয়-ক্ষতির কারণে গেলো বছর নিউজিল্যান্ডের ১৩ হাজার ৬০০ বাড়ির মালিক বিমা দাবি উত্থাপন করেছেন।

এর মধ্যে ২০২০ সালের ২৯ নভেম্বর থেকে ১ ডিসেম্বর এই সময়ে চরম আবহাওয়া ও বন্যার শিকার হয় নিউজিল্যান্ডের রাজধানী এবং জনসংখ্যার দিক দিয়ে দেশটির তৃতীয় বৃহত্তম শহর ওয়েলিংটন। এ ছাড়াও বক্সিং ডে’তে অস্বাভাবিক শিলাবৃষ্টি আঘাত হানে নেলসন-মার্লবারো অঞ্চলে। শুধু বক্সিং ডে’র আঘাতের কারণে বিমা দাবি উত্থাপিত হয় ৪১ মিলিয়ন ডলার।

আন্তর্জাতিক প্রতিবেদনগুলোতে নিউজিল্যান্ডকে বিশ্বের মধ্যে বেশি বিমা করা দেশ হিসেবে উল্লেখ করা হয়। যদিও লন্ডনের বিমা প্রতিষ্ঠান লয়েডস এর তালিকায় নিউজিল্যান্ডকে বিশ্বের দ্বিতীয় উচ্চ ঝুঁকি প্রবণ দেশ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। এদিকে গ্র্যাফটন বলেছেন, হঠাৎ ও অপ্রত্যাশিত চরম আবহাওয়া ব্যক্তি ও তাদের সম্প্রদায়ের জন্য ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি রেখে যেতে পারে।

ইন্স্যুরেন্স কাউন্সিল অব নিউজিল্যান্ড’র প্রধান নির্বাহি টিম গ্র্যাফটন জানিয়েছেন, অক্টোবরের ওহাউ অগ্নিকাণ্ডে চূড়ান্ত বিমা দাবির খরচ ৩৫ মিলিয়ন ডলার। এ ঘটনায় ১৮০টি বাড়ি ও জিনিসপত্রের বিমা দাবি, ১৫টি ব্যবসায়িক ও বাণিজ্যিক বিমা দাবি এবং ৩১টি ক্ষতিগ্রস্থ বা ধ্বংস হয়ে যাওয়া যানবাহনের জন্য বিমা দাবি উত্থাপন করা হয়েছে।

বছরটিতে আবহাওয়ার ব্যয়বহুল ঘটনাগুলোর মধ্যে রয়েছে, নভেম্বরে নেপিয়ার বন্যা, যাতে বৈধ দাবির অনুমান করা হয় ৭৩ মিলিয়ন ডলার, জুলাই মাসে আপার নর্থ আইল্যান্ডের বন্যা, এতে ৪৪ মিলিয়ন ডলার বিমা দাবি উত্থাপন হয়, ফেব্রুয়ারিতে সাউথল্যান্ড বন্যা, এসময় বিমা কোম্পানিগুলোর ব্যয় ৩০ মিলিয়ন ডলার এবং জুনে আপার নর্থ আইল্যান্ডে ঝড় ও টর্নেডোয় বিমাখাতের ব্যয় ১৭ মিলিয়ন ডলার।



এই বিভাগের আরও