আসামি ছিনিয়ে নেওয়ায় কাউন্সিলর ও যুবলীগ নেতাসহ সাতজনকে কারাদণ্ড

যোগফল রিপোর্ট

16 Mar, 2021 02:37pm


আসামি ছিনিয়ে নেওয়ায় কাউন্সিলর ও যুবলীগ নেতাসহ সাতজনকে কারাদণ্ড
ছবি প্রতীকী

রাজশাহী জেলার গোদাগাড়ী উপজেলায় মাদক সেবনের অভিযোগে সাজাপ্রাপ্ত পাঁচ আসামিকে ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগে গোদাগাড়ী পৌরসভার কাউন্সিলর ও যুবলীগ নেতাসহ সাতজনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়েছে মোবাইল কোর্ট।

সোমবার [১৫ মার্চ ২০২১] রাতে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহি ম্যাজিস্ট্রেট নাজমুন নাহার মোবাইল কোর্ট বসিয়ে তাদের সাজা দেন।

সাজাপ্রাপ্তদের মধ্যে গোদাগাড়ী পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর শহিদুল ইসলাম ও পৌর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম কাউসার মাসুম রয়েছেন।

মাদক নিয়ন্ত্রণ দপ্তর রাজশাহীর একটি গোয়েন্দা দল সোমবার সন্ধ্যায় পৌর এলাকার বুজরুক রাজারামপুর আমবাগান মোড়ের কাছ থেকে গাঁজা সেবনের অভিযোগে রমজান, সুমন, সাদ্দামসহ পাঁচ মাদকসেবীকে আটক করেন। মাদক নিয়ন্ত্রণ দলটি সন্ধ্যার পর  আটক করাদের মোবাইল কোর্টে হাজির করেন।

নির্বাহি ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলার সহকারি ভূমি কমিশনার নাজমুন নাহার পাঁচ মাদকসেবীকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন।

এদিকে দণ্ডপ্রাপ্তদের আদালত থেকে পুলিশের কাছে হস্তান্তরের জন্য নিয়ে যাওয়ার সময় আদালত চত্বরে দলবলসহ হামলা চালিয়ে পাঁচ আসামিকে ছিনতাই করেন যুবলীগ নেতা মাসুম ও কাউন্সিলর শহিদুল।

তবে পাঁচ আসামি হাতকড়াসহ পালিয়ে যেতে সক্ষম হলেও মাসুম ও শহিদুল পুলিশের হাতে ধরা পড়ে যান।

পরে রাত আনুমানিক সাড়ে নয়টার দিকে পালিয়ে যাওয়া পাঁচ আসামি পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করে।

পরে পাঁচ আসামির দণ্ড বাড়িয়ে এক বছর করেন মোবাইল কোর্ট। সেই সঙ্গে আসামি ছিনতাইয়ের অভিযোগে যুবলীগ নেতা মাসুম ও কাউন্সিলর শহিদুলকে এক মাস করে কারাদণ্ড দেন।

গোদাগাড়ী থানার ওসি খলিলুর রহমান পাটোয়ারী জানান, মাদক সেবনের অভিযোগে পাঁচজনকে এক বছর করে এবং আসামি ছিনতাইয়ের অভিযোগে মাসুম ও কাউন্সিলর শহিদুলকে এক মাস করে দণ্ড দেওয়া হয়েছে।

আসামিদের মঙ্গলবার [১৬ মার্চ ২০২১] সকালে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।



এই বিভাগের আরও