ইয়াবা সেবনকারী ‘ইমাম’ কারাগারে

যোগফল প্রতিবেদক

09 Apr, 2021 07:29pm


ইয়াবা সেবনকারী ‘ইমাম’ কারাগারে
ছবি : সংগৃহীত

গ্রামের একটি মসজিদে দেড় বছর যাবত ইমামতি করেন মো. আল আমিন। নূরানী মুয়াল্লিম হিসেবে প্রশিক্ষণ নেওয়ার জন্য ভর্তিও হয়েছেন যাত্রাবাড়ি কাজলারপাড় প্রধান নূরানী মুয়াল্লিম প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে। প্রতিষ্ঠান ছুটি হওয়ায় এক আত্মীয় বাড়িতে গিয়ে সংগ্রহ করেন ইয়াবা। সেবনের জন্য সেগুলো নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে ধরা পড়েন পুলিশের হাতে। পরে তার বিরুদ্ধে মামলা করে পুলিশ। 

মো. আল আমিনের বাড়ি নেত্রকোনার দূর্গাপুর উপজেলার রামনগর কাকজোড় গ্রামে। ওই গ্রামের জয়নাল আবেদীনের সন্তান তিনি। দূর্গাপুরের জারিয়া চরেরভিটা মসজিদের ইমাম হিসেবে গত দেড় বছর ধরে দায়িত্ব পালন করছিলেন। 

গত ২৮ মার্চ নূরানী মুয়াল্লিম হিসেবে প্রশিক্ষণ নিতে ভর্তি হন যাত্রাবাড়ি কাজলারপাড় প্রধান নূরানী মুয়াল্লিম প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে। কিন্তু সরকারিভাবে মাদরাসা বন্ধ ঘোষণা করে দেওয়ার পর ওই প্রতিষ্ঠানটিও বন্ধ করা হয়। ছুটি পেয়ে আল আমিন ময়মনসিংহ ওজলার ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার জাটিয়া ইউনিয়নের টাঙ্গনগাতি গ্রামের ফুফুর বাড়িতে বেড়াতে যান। ফুফাতো ভাই ইমনের মাধ্যমে সংগ্রহ করেন কিছু ইয়াবা। সেগুলো নিয়ে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দিলে খবর পায় পুলিশ। হারুয়া বাসস্টেশন এলাকায় আল আমিনকে টার্গেট করে তল্লাশি শুরু করেন ঈশ্বরগঞ্জ থানার এসআই কাওসার আহমেদ জিহাদ। উদ্ধার করা হয় ১১ পিস ইয়াবা। পরে তার বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার [৮ এপ্রিল ২০২১] রাতে এসআই জিহাদ বাদি হয়ে থানায় মাদক আইনে একটি মামলা করেন। শুক্রবার [৯ এপ্রিল] আল আমিনকে ময়মনসিংহ আদালতে পাঠানো হয়। 

পুলিশের দাবি, আল আমিনের স্বজনরা মাদক ব্যবসার সঙ্গে সম্পৃক্ত। তার ফুফাতো ভাই ইমনকে ধরতে পুলিশের তৎপরতা চলছে। আল আমিনের ফুফা লাল মিয়াও মাদক ব্যবসার সঙ্গে সম্পৃক্ত।

ঈশ্বরগঞ্জ থানার ওসি মো. আবদুল কাদের মিয়া বলেন, দীর্ঘদিন ধরে মাদক ব্যবসার সঙ্গে সম্পৃক্ত আল আমিন। তাকে ইয়াবাসহ গ্রেপ্তারের পর আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।


বিভাগ : অপরাধ


এই বিভাগের আরও